Breaking News
Home / Cricket / ২০১৯ বিশ্বকাপের আগেই জাতীয় দলে ফিরছেন আশরাফুল

২০১৯ বিশ্বকাপের আগেই জাতীয় দলে ফিরছেন আশরাফুল

২০১৫ বিশ্বকাপ থেকে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি পর্যন্ত বাংলাদেশ ক্রিকেট সবচেয়ে মধুরতম সময় পার করছে। চ্যাম্পিয়ান্স ট্রফির সেমিফাইনালে খেলার কৃতিত্ব দেখিয়েছে মাশরাফি বাহিনী। তবে পুরো সিরিজে বাংলাদেশের দুঃখের কারণ ছিল তিন নম্বর ব্যাটসম্যানদের চরম ব্যর্থতা। এরই মধ্যে সাব্বির রহমানকে অনেক সুযোগ দেওয়া হয়েছে। তাকে আবারও ঘরোয়া ক্রিকেট খেলে প্রমাণ করেই ফিরতে হবে জাতীয় দলে-এমন ঘোষণাও দিয়েছিলেন বাংলাদেশের সাবেক কোচ চন্দিকা হাতুরেসিংহে। পরে সাব্বিরের বিকল্প হিসাবে তিন নম্বরে ওপেনার হিসাবে খেলা ইমরুল কায়েসকে চেষ্টা করা হলেও তিনিও ব্যর্থ হয়েছে।







বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের মধ্যে একসময় টেস্টে তিন নম্বরে হাবিবুল বাশার সফল হলেও ওয়ানডেতে জায়গাটা নিয়ে সব সময় পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলেছে, যেটি এখনো হচ্ছে। ৫০ ওভারের ক্রিকেটে এখন পর্যন্ত বাংলাদেশের ৩৩ ব্যাটসম্যান ব্যাটিং করেছেন এই পজিশনে। এঁদের মধ্যে যা একটু সফল আফতাব আহমেদ। তিন নম্বরে নেমে তিনিই একমাত্র এক হাজারের বেশি রান করেছেন।







এখানে ব্যাটিং করে ৫৪ ম্যাচে আফতাবের রান ১৩০৩। ৫২ ম্যাচে ৯৮৪ রান করে এই তালিকায় দুই নম্বরে আছেন মোহাম্মদ আশরাফুল। যেহেতু আফতাব আহমেদ ক্রিকেট থেকে অবসর নিয়ে কোচিংয়ে মনোযোগী হয়েছেন, সেক্ষেত্রে আশরাফুলকে একবার সুযোগ দেওয়া যেতেই পারে।







তিন নম্বর ব্যাটিং পজিশন একটা দলের জন্য কতটা গুরুত্বপূর্ণ, সেটি বলছিলেন আফতাব,‘ওপেনার দ্রুত আউট হলে তিন নম্বরের ব্যাটসম্যানকে ওপেনারের ভূমিকা পালন করতে হয়। কিন্তু এই পজিশনে নামা ব্যাটসম্যানও যদি দ্রুত ফিরে যায়, দল চাপে পড়ে যায়। মিডল অর্ডারকে দ্রুত চাপে না ফেলতে তিনের ব্যাটসম্যানকে ভালো করাটা জরুরি। কোহলিকে দেখেন। উইকেটে থাকছে, ইনিংস লম্বা করছে। আবার শটও খেলছে। দক্ষতা ও ধৈর্যের সমন্বয়ে একজন দুর্দান্ত ব্যাটসম্যান তিনে আমরা দেখছি না।’







সমস্যাটা ভাবাচ্ছে জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক ও বর্তমানে বিসিবির নির্বাচক হাবিবুলকেও, ‘চ্যাম্পিয়নস ট্রফির ভুল থেকে শিক্ষা নিয়ে আমাদের ২০১৯ বিশ্বকাপে যেতে হবে। ভবিষ্যতে তিনে কে ব্যাটিং করবে, আলোচনা করে সমাধান করতে হবে। জাতীয় দলের বাইরেও সমস্যাটা থেকে গেছে। ঘরোয়া ক্রিকেটে অনেক ওপেনারের নাম বলতে পারবেন। কিন্তু তিনে দুর্দান্ত ব্যাটিং করে, এমন কজন ব্যাটসম্যানের নাম বলতে পারবেন? আমরা ওপেনারদের দিয়ে তিন নম্বরের কাজ চালাচ্ছি। এটাই রীতি হয়ে যাচ্ছে।’







প্রকৃত বিষয় হচ্ছে, আশরাফুলের মতো প্রতিভাবান ক্রিকেটার নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ঘরোয়া ক্রিকেটে ফিরেছেন। সর্বশেষ ঘরোয়া টুর্নামেন্টে মোটামুটি ভালো ব্যাটিং করেছেন তিনি। দুইটি অর্ধশতকও পেয়েছেন। এই বছর সকল নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটেও ফিরবেন তিনি। বয়স ৩২ হলেও একজন ব্যাটসম্যানের জন্য ৪৩ বছর ক্রিকেট খেলে যাওয়ার নজির স্থাপন করে সদ্য অবসর নিয়েছেন পাকিস্তানের মিসবাহ উল হক।

 

 

সেক্ষেত্রে আমরা বলতেই পারি, আশরাফুলের তেমন কোনো বয়সই হয়নি। আশরাফুলও মনে করেন তেমনটা। নিজেকে ঘরোয়া ক্রিকেটে প্রমাণ করেই তিনি আবার জাতীয় দলে ফিরতে চান। এক্ষেত্রে ক্রিকেট বোর্ডের আন্তরিক সহযোগিতাও প্রয়োজন। এছাড়া জাতীয় দলে তিন নম্বরে ব্যাটিং করার খেলোয়াড় পাচ্ছে না বিসিবি। যার ফলে অতি শিগগিরই জাতীয় দলে ফেরানো উচিত এই ব্যাটিং জিনিয়াসকে!

Check Also

সুখবরঃ বিসিবির নতুন নিয়মে সুযোগ পাচ্ছেন তারা, তালিকার শীর্ষে আছেন আশরাফুল। ২য় শাহরিয়ার নাফিস। পড়ুন বিস্তারিত

ফ্র্যাঞ্চাইজি ভিত্তিক বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় এবং গুরুত্বপূর্ণ টুর্নামেন্ট বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ বিপিএল। প্রতিবছরই বিপিএল শুরু …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!
%d bloggers like this: