Breaking News
Home / Cricket / আজীবনের জন্য নিষিদ্ধ স্মিথ-ওয়ার্নার!?

আজীবনের জন্য নিষিদ্ধ স্মিথ-ওয়ার্নার!?

বল ট্যাম্পারিং কাণ্ডে টালমাটাল অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট। এ নিয়ে ক্রিকেট বিশ্বেও চলছে তোলপাড়। এরই মধ্যে আইসিসি অজি অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথ ও ক্যামেরন ব্যানক্রফটের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নিয়েছে। তবে এখানেই শেষ হচ্ছে না সবকিছু। এ বিষয়ে কঠোর অবস্থান নিয়েছে অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট বোর্ডও। তারা বল ট্যাম্পারিংয়ের ঘটনায় নিজস্ব তদন্ত করবে বলে জানিয়ে দিয়েছে। আর তাতে যদি স্মিথ-ডেভিড ওয়ার্নাররা দোষী সাব্যস্ত হন তবে আজীবনের জন্য নিষিদ্ধ হয়ে যেতে পারেন তারা। রোববার এমনই ইঙ্গিত দিয়েছেন ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার প্রধান জেমস সাদারল্যান্ড।

ক্রিকেটারদের এ কাণ্ডে অস্ট্রেলিয়ার সমর্থকদের কাছে দুঃখপ্রকাশ করে সাদারল্যান্ড বলেছেন, ‘আমরা দুঃখিত, অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট সমর্থক। আমরা দুঃখিত যে, সকালে উঠে আপনাদের এমন খবর শুনতে হল। অধিনায়ক (স্মিথ) ক্রিকেট ও খেলার স্পিরিট বিরোধী কাজকে সমর্থন দিয়েছেন। এ আচরণ দল ও ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার সততাকে প্রশ্নবিদ্ধ করেছে।’

 

 

এদিকে এ ঘটনায় নড়েচড়ে বসেছে অস্ট্রেলিয়ান স্পোর্টস কমিশনও (এএসসি)। এক বিবৃতিতে তারা জানিয়েছে, ‘এএসসি খেলাকে প্রতারণার বাইরে রাখতে চায়। অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট দল আমাদের দেশের আইকনিক প্রতিনিধি। হাজার হাজার তরুণ খেলোয়াড়, ক্রিকেট সমর্থক তাদের দৃষ্টান্ত অনুসরণ করে। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার তদন্ত শেষে স্মিথ ও দলের নেতৃস্থানীয় সদস্যসহ বল টেম্পারিংয়ের সাথে জড়িত সবাইকে অতিসত্বর এএসসির মুখোমুখি হতে হবে।’

স্মিথ, ওয়ার্নার, ব্যানক্রফট ও অস্ট্রেলিয়ার কোচ ড্যারেন লেহম্যানকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য একটি স্বাধীন কমিশন গঠনের চিন্তাভাবনা করছে অস্ট্রেলিয়ান স্পোর্টস কমিশন। কমিশন শুনানি শেষে তাদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় শাস্তি মূলক ব্যবস্থা নেবে। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার ৪২ ধারার আওতায় কোন ক্রিকেটার যদি অনৈতিক খেলা বা ক্রিকেটের স্পিরিট বিরোধী কর্মকাণ্ডের জন্য অভিযুক্ত হন তবে, তার সর্বোচ্চ শাস্তি আজীবন নিষিদ্ধ। এ ক্ষেত্রে অপরাধের গভীরতা ও ক্ষতির মাত্রা বিবেচনা করে শাস্তি নির্ধারণ করা হয়।

 

 

এর আগে স্মিথ প্রেস কনফারেন্সে শনিবার বিকেলে স্বীকার করলেন, এটা তাদের পরিকল্পিত। আরো জানিয়েছেন, সিনিয়র খেলোয়াড়রা মিলেই এই হীন চক্রান্ত করেছেন। তবে সেই সিনিয়র খেলোয়াড় কারা, নাম বলেননি। কেপ টাউনের নিউল্যান্ডসে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে তৃতীয় দিনের খেলার লাঞ্চের সময়ই এই ষড়যন্ত্র করা হয়েছিল। এটাকে ব্যানক্রফটগেট কেলেঙ্কারি বলা যায়। বলা যায় এটাই অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেটের অন্ধকারতম দিন। এই কেলেঙ্কারিতে স্মিথ এবং তার ডেপুটি ডেভিড ওয়ার্নারকে এরই মধ্যে অধিনায়কত্ব এবং সহ-অধিনায়কত্বের দায়িত্ব ছাড়তে হয়েছে।

Check Also

সুখবরঃ বিসিবির নতুন নিয়মে সুযোগ পাচ্ছেন তারা, তালিকার শীর্ষে আছেন আশরাফুল। ২য় শাহরিয়ার নাফিস। পড়ুন বিস্তারিত

ফ্র্যাঞ্চাইজি ভিত্তিক বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় এবং গুরুত্বপূর্ণ টুর্নামেন্ট বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ বিপিএল। প্রতিবছরই বিপিএল শুরু …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!
%d bloggers like this: